বৃহস্পতিবার , মে ২৩ ২০২৪

যথাযোগ্য মর্যাদায় মহান বিজয় দিবস উদযাপিত

ইলিয়াছ পাটওয়ারী

 

চাঁদপুর শহরসহ জেলার মানুষ ও বিভিন্ন সংগঠন যথাযোগ্য মর্যাদায় এবং ব্যাপক উৎসাহ উদ্দীপনায় মহান বিজয় বার্ষিকী পালিত হয়েছে। গত সোমবার সারাদেশের ন্যায় চাঁদপুরে নানা কর্মসূচি পালনের মধ্য দিয়ে দিনটি উদযাপন করে জাতি।

বিজয়ের ৪৯তম বার্ষিকীতে দিবসের প্রথম প্রহর থেকেই শহরের শহীদ মুক্তিযোদ্ধা সড়ক লেকের পাড়ে ‘অঙ্গীকার’ পাদদেশে একাত্তরের বীর সন্তানদের প্রতি বিন¤্র শ্রদ্ধা নিবেদনে শীতের সকালে হাজারো মানুষের ঢল নামে। জেলা প্রশাসন, পুলিশ প্রশাসন, রাজনৈতিক ও বিভিন্ন পেশা শ্রেনীর সংগঠন থেকে শুরু করে যোদ্ধাহত মুক্তিযোদ্ধা, শহীদ মুক্তিযোদ্ধাদের উত্তরসূরিসহ নতুন প্রজন্মের ¯্রােত মিশে অঙ্গীকারে।

এছাড়া এদিন সূর্যোদয়ের সাথে সাথে জেলার সকল সরকারি, আধা সরকারি, বেসরকারি, স্বায়ত্তশাসিত ও ব্যক্তি মালিকানাধীন প্রতিষ্ঠানে যথাযথ মর্যাদার সাথে জাতীয় পতাকা উত্তোলন করা হয়। সকাল সাড়ে ৮টায় চাঁদপুর স্টেডিয়ামে আনুষ্ঠানিকভাবে জাতীয় পতাকা উত্তোলন করেন জেলা প্রশাসক মোঃ মাজেদুর রহমান খান। পতাকা উত্তোলনের পর জেলা প্রশাসক ও পুলিশ সুপার পায়রা উড়ান।

এছাড়া সিভিল প্রশাসন ও পুলিশ প্রশাসনের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা, মুক্তিযোদ্ধা, গণ্যমান্য ব্যক্তি এবং বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। আনুষ্ঠানিকভাবে জাতীয় পতাকা উত্তোলনের পর পুলিশ, আনসার-ভিডিপি, বিএনসিসি, ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স, কারারক্ষী, রোভার স্কাউটস্, স্কাউটস্, গার্লস গাইড ও কমিউনিটি পুলিশসহ বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান এবং শিশু-কিশোর সংগঠন কুচকাওয়াজ ও সালাম প্রদর্শন করে। এরপর বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান ও সংগঠনের শিশু-কিশোররা শরীরচর্চা, ডিসপ্লে প্রদর্শন ও ক্রীড়া প্রদর্শন করে। এসব অনুষ্ঠান শেষে অংশগ্রহণকারীদের মাঝে পুরস্কার প্রদান করা হয়।

সকাল ১১টায় জেলা প্রশাসনের আয়োজনে চাঁদপুর সার্কিট হাউজ সম্মেলন কক্ষে মহান বিজয় দিবস উপলক্ষ্যে বীর মুক্তিযোদ্ধা ও শহীদ পরিবারের সদস্যদের সংবর্ধনা ও আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন জেলা প্রশাসক মো. মাজেদুর রহমান খান। অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) ও মুক্তিযোদ্ধা সংবর্ধনা উপ-কমিটির আহবায়ক মোহাম্মদ আব্দুল্লাহ আল মাহমুদ জামান এর সভাপতিত্বে ও সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) কানিজ ফাতেমার সঞ্চালনায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন পুলিশ সুপার মো. মাহবুবুর রহমান পিপিএম।

এ ছাড়া বিজয় দিবস উপলক্ষে বিভিন্ন সরকারি প্রতিষ্ঠান, স্বায়ত্তশাসিত প্রতিষ্ঠান, শহরের শপথ চত্বর ও ইলিশ চত্বর আলোকসজ্জা করা হয়। জেলার স্থানীয় পত্রিকা দৈনিক চাঁদপুর দিগন্তসহ অন্যান্য পত্রিকা বিশেষ সংখ্যা ও বিভিন্ন ব্যক্তি প্রতিষ্ঠানের শুভেচ্ছা প্রকাশ করেন। জেলার অন্যান্য উপজেলায়ও উপজেলা প্রশাসন ও রাজনৈতিক দলগুলোর উদ্যোগে বিজয় দিবস উদ্যাপিত হয়।

১৯৭১ সালে ৯ মাসের রক্তক্ষয়ী যুদ্ধের পর ১৬ ডিসেম্বর পাকিস্তানী সামরিক বাহিনী পরাজয় স্বীকার করে জেনারেল এ এ কে নিয়াজি তার সদস্যদের নিয়ে আত্মসমর্পণ করে। ‘মহান বিজয় দিবস’ খচিত টি-শার্ট গায়ে জড়িয়ে, ব্যান্ডেনা মাথায় লাগিয়ে ও স্বাধীনতা-সার্বভৌমত্বের প্রতীক জাতীয় পতাকা হাতে সবাই মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় গণতন্ত্র পুনরুদ্ধার করে দুর্নীতিমুক্ত ও সমৃদ্ধ দেশ গড়ার প্রত্যয় ব্যক্ত করেন।

ক্যাপশন: মহান বিজয় দিবস উপলক্ষ্যে বীর মুক্তিযোদ্ধা ও শহীদ পরিবারের সদস্যদের সংবর্ধনা ও আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখছেন জেলা প্রশাসক মো. মাজেদুর রহমান খান।