শনিবার , জুলাই ২০ ২০২৪

প্রাথমিক ও ইবতেদায়ী সমাপনী পরীক্ষা শুরু ১৭ নভেম্বর চাঁদপুরে পরীক্ষার্থী ৫২ হাজার ৪শ’ ৭৪ জন ॥ পরীক্ষা কেন্দ্র ১শ’ ৫৬টি

এম এ গফুর
প্রাথমিক ও ইবতেদায়ি শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষা ২০১৯। পরীক্ষা আগামী ১৭ নভেম্বর শুরু হয়ে শেষ হবে ২৪ নভেম্বর। চাঁদপুর জেলায় বিদ্যালয় ও মাদ্রাসার ১ হাজার ৮শ’ ৫১ টি প্রতিষ্ঠানের ৫ম শ্রেণীর সমাপনী পরীক্ষার্থী সংখ্যা ৫২ হাজার ৪ শ’ ৭৪ জন।

এর মধ্যে প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষায় ১হাজার ৪শ’ ৪৬টি বিদ্যালয়ের ছাত্র ১৯ হাজার ৮শ’ ৪৯ জন, ছাত্রী- ২৫ হাজার ৭শ’ ৬৮ জন, মোট- ৪৫ হাজার ৬শ’ ১৭ জন এবং ইবতেদায়ী শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষায় ২শ’ ১৫ টি মাদ্রাসার ছাত্র- ৩ হাজার ৮শ’ ১৪ জন, ছাত্রী- ৩ হাজার ৪৩ জন, মোট- ৬ হাজার ৮শ’ ৫৭ জন। গতবছরের তুলনায় এবার প্রাথমিক ও ইবতেদায়ী উভয় পরীক্ষার্থীই কমেছে। গত বছর প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষার্থী ছিল ৪৭ হাজার ৯ শ’ ৮৬ জন এবং ইবতেদায়ী শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষার্থী ছিল ৬ হাজার ৯শ’ ৪৯ জন।

উপজেলাওয়ারী প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষার্থী ঃ সদর উপজেলায় ২শ’ ৭২টি বিদ্যালয়ের ছাত্র- ৩হাজার ৭শ’ ৯২ জন, ছাত্রী- ৫ হাজার ৮৩ জন, মোট- ৮ হাজার ৮শ’ ৭৫ জন; কচুয়া উপজেলায় ২শ’ ৬৫ টি বিদ্যালয়ের ছাত্র- ২ হাজার ৯শ’ ৬০ জন, ছাত্রী- ৪ হাজার জন, মোট- ৬ হাজার ৯ শ’ ৬০ জন; হাজীগঞ্জ উপজেলায় ২শ’ ২৫ টি বিদ্যালয়ের ছাত্র- ২ হাজার ৬শ’ ৫৩ জন, ছাত্রী- ৩ হাজার ৪শ’ ৬৫ জন, মোট- ৬ হাজার ১শ’ ১৮ জন;

শাহরাস্তি উপজেলায় ১শ’ ৫৪ টি বিদ্যালয়ের ছাত্র- ১ হাজার ৯শ’ ৩৫ জন, ছাত্রী- ২ হাজার ৫শ’ ৭৫ জন, মোট- ৪ হাজার ৫ শ’ ১০ জন; ফরিদগঞ্জ উপজেলায় ২শ’ ৫৫ টি বিদ্যালয়ের ছাত্র- ৩ হাজার ৯০ জন, ছাত্রী- ৪ হাজার ১শ’ ২০ জন, মোট- ৭ হাজার ২শ’ ১০ জন; মতলব দক্ষিণ উপজেলায় ১শ’ ৫৪ টি বিদ্যালয়ের ছাত্র- ১ হাজার ৮শ’ জন, ছাত্রী- ২ হাজার ১শ’ ৬১ জন, মোট- ৩ হাজার ৯ শ’ ৬১ জন; মতলব উত্তর উপজেলায় ২শ’ ৪১ টি বিদ্যালয়ের ছাত্র- ২ হাজার ৭শ’ ৫৩ জন, ছাত্রী- ৩ হাজার ৯১ জন, মোট- ৫ হাজার ৮ শ’ ৪৪ জন; হাইমচর উপজেলায় ৮০ টি বিদ্যালয়ের ছাত্র- ৮শ’ ৬৬জন, ছাত্রী- ১ হাজার ২শ’ ৭৩ জন, মোট- ২ হাজার ১শ’ ৩৯ জন।

উপজেলাওয়ারী ইবতেদায়ী শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষার্থী ঃ সদর উপজেলায় ২৯টি মাদ্রাসার ছাত্র- ৫শ’ ৮৭ জন, ছাত্রী- ৪শ’ ৭৭ জন, মোট- ১ হাজার ৬৪ জন; কচুয়া উপজেলায় ৩৭ টি মাদ্রাসার ছাত্র- ৬শ’ ৩৩ জন, ছাত্রী- ৬শ’ ৪৫ জন, মোট- ১ হাজার ২ শ’ ৭৮ জন; হাজীগঞ্জ উপজেলায় ২৯ টি মাদ্রাসার ছাত্র- ৬শ’ ২৬ জন, ছাত্রী- ৪শ’ ৮২ জন, মোট- ১ হাজার ১শ’ ৮ জন; শাহরাস্তি উপজেলায় ২৪ টি মাদ্রাসার ছাত্র- ৪শ’ ২১ জন, ছাত্রী- ৩শ’ ৫২ জন, মোট- ৭শ’ ৭৩ জন;

ফরিদগঞ্জ উপজেলায় ৫৪ টি মাদ্রাসার ছাত্র- ৯শ’ ২জন, ছাত্রী- ৬শ’ ১৯ জন, মোট- ১ হাজার ৫ শ’ ২১ জন; মতলব দক্ষিণ উপজেলায় ১৭ টি মাদ্রাসার ছাত্র- ২শ’ ৮২ জন, ছাত্রী- ২শ’ ১৩ জন, মোট- ৪ শ’ ৯৫ জন; মতলব উত্তর উপজেলায় ১৫ টি মাদ্রাসার ছাত্র ১শ’ ৯৩ জন, ছাত্রী- ১শ’ ৪৩ জন, মোট- ৩ শ’ ৩৬ জন; হাইমচর উপজেলায় ১০ টি মাদ্রাসার ছাত্র- ১শ’ ৭০ জন, ছাত্রী- ১শ’ ১২ জন, মোট- ২ শ’ ৮২ জন ।

২০০৯ সাল থেকে প্রাথমিক সমাপনী পরীক্ষা এবং ২০১০ সালে ইবতেদায়িতে এই পরীক্ষা শুরু হয়। প্রথম দুই বছর বিভাগভিত্তিক ফল দেয়া হলেও ২০১১ সাল থেকে গ্রেডিং পদ্ধতিতে ফল প্রকাশ করা হচ্ছে। ২০১৩ সাল থেকে এ পরীক্ষার সময় আধ ঘণ্টা বাড়িয়ে আড়াই ঘণ্টা করা হয়। সমাপনী পরীক্ষার ফলের ভিত্তিতে শিক্ষার্থীদের বৃত্তি দিয়ে দেয়া হয়।