শনিবার , জুলাই ২০ ২০২৪

চাঁদপুরের শতাধিক সাংবাদিকের বিবৃতি সাঈদীকে মানবিক বিবেচনায় মুক্তি দিন

 

বিশ^বরেণ্য মুফাসসিরে কুরআন আল্লামা দেলওয়ার হোসাইন সাঈদীকে মানবিক বিবেচনায় মুক্তির জন্য চাঁদপুরের শতাধিক সাংবাদিক এক বিবৃতি দিয়েছেন। সাংবাদিকগণ মনে করেন মাওলানা দেলওয়ার হোসাইন সাঈদী সূদীর্ঘ ৫০ বছর দেশে বিদেশে কুরআনের তাফসীর করেছেন। তিনি দু’বার নিজ এলাকা থেকে জাতীয় সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়ে দেশ ও জাতির উন্নয়নে ভূমিকা রেখেছেন।

তিনি জাতীয় সংসদের প্যানেল স্পিকার ও ধর্ম মন্ত্রাণালয়ের সংসদীয় স্থায়ী কমিটির চেয়ারম্যান হিসাবেও গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব পালন করেছেন। বহু মানুষ তার তাফসীর শুনে ইসলামী জীবন যাপনে উদ্ধুদ্ধ হয়েছে। মানুষ তাকে হৃদয় দিয়ে ভালবাসে। যার মুখে কুরআনের কথা শুনে মানুষ আল্লাহর পথে চলার প্রেরণা পেয়েছে, লাখো তরুণ আলোর দিশা পেয়েছে। তিনি আজ ১০ বছর যাবত কারাগারে বন্দী রয়েছেন। বর্তমানে তার বয়স ৮১ বছর। তিনি লিভার, কিডনি, হার্টসহ নানান জটিল রোগে আক্রান্ত।

বর্তমানে বাংলাদেশসহ বিশ^ব্যাপী করোনা ভাইরাসের ব্যাপক সংক্রমণে মানুষের  মাঝে চরম উদ্বেগ উৎকন্ঠা বিরাজ করছে। এ অবস্থায় আল্লামা সাঈদীকে নিয়ে মানুষ গভীরভাবে উদ্বিগ্ন। দেশের মানুষ তার মুক্তি চায়। ইতিমধ্যে অনেক দেশ কারাবন্দীদের মুক্তি দিয়েছেন। এ পরিস্থিতিতে ধর্মীয়, মানবিক, মারাতœক অসুস্থ ও বয়সের বিবেচনায় আল্লামা দেলাওয়ার হোসাইন সাঈদীকে মুক্তি দেয়ার জন্য আমরা সরকারের প্রতি দাবি জানাচ্ছি।

বিবৃতিদাতা সাংবাদিকগণের মধ্যে রয়েছেন-১। মোঃ শাহজাহান মিয়া, ২। মোঃ খালেকুজ্জামান শামীম, ৩।মোঃ ইলিয়াস পাটওয়ারী ৪। মোঃ এন এম শাহাদাত তালুকদার, ৫। মোঃ সালাউদ্দিন খান, ৬। মোঃ জামাল আহমেদ আখন্দ, ৭। মোহাম্মদ হোসাইন,৮। রেজাউল করীম, ৯। আঃ গফুর মোল্লা, ১০। আবু সুফিয়ান ভূঁইয়া, ১১। জি এম এমরাণ , ১২। মোঃ আবুল বাশার, ১৩। জি এম ফজলুর রহমান, ১৪। মোঃ সোলায়মান মিয়া, ১৫। মোঃ আবদুল কাদের , ১৬। মোঃ শামীম,১৭। মোঃ আলী আকবর, ১৮। ফয়েজ আহমদ, ১৯। ইমাম হোসাইন হীরা,

২০। আবু তাহের মেসবাহ, ২১। এমদাদ হোসেন,২২। এম আই ইদ্রিস, ২৩। আঃ আজিজ,২৪। আনোয়ার হোসেন, ২৫। মুজাম্মেল হক, ২৬। অহিদুর রহমান উৎপল, ২৭। মোঃ আমিনুল ইসলাম, ২৮। মোঃ সোলায়মান খান, ২৯। বাদশাহ ভূইয়া, ৩০। আলমগীর হোসেন, ৩১। মীর শাহাদাত হোসেন, ৩২। গাজী সালাহউদ্দিন, ৩৩। এম রহমান, ৩৪। সাইফুল ইসলাম, ৩৫। মোঃ শাহআলম, ৩৬। মাসুম হোসেন, ৩৭। ইকবাল হোসেন, ৩৮। খোরশেদ আলম, ৩৯। কাউসার হোসেন, ৪০। শফিকুর রহমান, ৪১। আল-আমিন৪২। রাসেল মিয়া, ৪৩। সুমন মিয়া,৪৪। আব্দুল্লাহ শাকুর প্রমুখ।