মঙ্গলবার , মে ২১ ২০২৪

কচুয়ায় ফসলি জমির মাটি কেটে খাল খনন, কৃষকদের আহাজারী

কচুয়ায় ফসলি জমির মাটি কেটে খাল খননের অভিযোগ উঠেছে। বিএডিসি আওতায় কচুয়া উপজেলার দড়িয়া হায়াতপুর-রাজাপুর ও বড়হায়াতপুর গ্রাম অংশে ২০ ফুট প্রসস্থের ১ কিলোমিটার খাল খনন করা হচ্ছে ভেকু দ্বারা।

এই খাল খননের কারনে খাল অংশের প্রায় ১শ ৫০ শতক ইরি-বুরো ফসল পাওয়া থেকে বঞ্চিত হচ্ছে কৃষকরা। সার, বীজ ও শ্রমিক দিয়ে ধানের চারা বপন করতে গিয়ে ইতিমধ্যেই কৃষকদের যথেষ্ট অর্থ ব্যয় হয়ে গেছে।

কৃষকদের অভিযোগ, তাদেরকে খাল খনন করা বিষয়ে কোন কিছুই অবগত না করেই ভেকু দিয়ে জমির মাটি কাটা শুরু করে। এ খাল খনন তাদের নিকট বিনা মেঘে বর্জ্রপাতের মতো। বিএডিসি সূত্রে জানা গেছে, প্রায় ১০ লক্ষ টাকা ব্যয়ে ক্ষুদ্র ও সেচ প্রকল্পের আওতায় এ খাল খনন করা হচ্ছে।

সরেজমিনে গেলে ক্ষতিগ্রস্থ কৃষক আনোয়ার, খোরশেদ মোল্লা, গাজী ইব্রাহিম, রহমান মোল্লা, মো: ইউসুফ, ভবেতুষ, রফিক, আলম, মনির, রহমান, মালেক মোল্লা জানান- ঠিকাদার হঠাৎ করে আমাদেকে কোন কিছু না জানিয়ে আমাদের ফসলি জমিতে ভেকু দিয়ে মাটি কাটা শুরু করার খবর পেয়ে ছুটে এসে প্রতিবাদ করলে ঠিকাদারের লোক আবুল বাশার মোল্লার ছেলে ফরহাদ মোল্লা তার দলবল নিয়ে আমাদের হুমকি ধমকি দেয়।

ক্যাপশন: কচুয়ায় এভাবেই ফসলি জমির মাটি ভেকু দিয়ে কাটছে।