মঙ্গলবার , মে ২১ ২০২৪

সম্ভাব্য চেয়ারম্যান প্রার্থী হিসেবে প্রচারনা চালিয়ে যাচ্ছেন অ্যাডঃ আলম খান মঞ্জু

 

আগামী ১১ নভেম্বর অনুষ্ঠিত হবে চাঁদপুর সদর উপজেলার ৭ নং তরপুরচন্ডী ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচন। নির্বাচনের তফসিলের পর থেকেই বিএনপির সম্ভাব্য চেয়ারম্যান প্রার্থী হিসেবে প্রচারনা চালিয়ে যাচ্ছেন, অ্যাডঃ আলম খান মঞ্জু।

নির্বাচন কমিশন সূত্রে জানা গেছে, ইউপি নির্বাচনে মনোনয়ন জমা দেয়ার শেষ তারিখ ১৭ অক্টোবর, মনোনয়ন বাছাই ২০ অক্টোবর, প্রত্যাহার ২৭ অক্টোবর, ও প্রতীক বরাদ্দ ২৭ অক্টোবর। নির্বাচনকে সামনে রেখে ৭ নং তরপুরচন্ডী ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচনে সম্ভাব্য সকল চেয়ারম্যান প্রার্থীরা প্রচার প্রচারণা চালিয়ে যাচ্ছেন।

গ্রাম- গ্রমান্তরে এখন ইউপি নির্বাচনের আমেজ লক্ষ্য করা যাচ্ছে। নির্বাচনী হাওয়া বইছে ইউনিয়নগুলোতে। সম্ভাব্য সংশ্লিষ্ট প্রার্থী, কর্মী ও সমর্থকদের মধ্যে প্রচারণা শুরু হয়ে গেছে তফসিল ঘোষণার পরের দিন থেকেই।

বিএনপির নেতা সম্ভাব্য চেয়ারম্যান প্রার্থী অ্যাডঃ আলম খান মঞ্জু বিএনপি নেতা ভোটারদের দ্বারে দ্বারে গিয়ে দোয়া নিচ্ছেন। এই ইউনিয়নে বিএনপির একমাত্র প্রার্থী হচ্ছেন তিনি। তিনি দীর্ঘদিন যাবৎ নিঃস্বার্থভাবে এলাকার মানুষের সেবা করে যাচ্ছেন। এলাকার যে কোন মানুষের বিপদে আপদে নিজ উদ্যোগে সেখানে ছুটে যান।

যে কারনে ওই ইউনিয়নের সকল ধরনের মানুষের কাছে জনদরদি হিসেবে তিনি পরিচিত হয়ে উঠেছেন খুব অল্প সময়ে। জনগনের ইচ্ছা ও ভালোবাসার প্রতিদান দিতে জনপ্রতিনিধি হয়ে সুখ- দুঃখের সাথী হিসেবে সর্বদা তাদের পাশে থাকার জন্য এবার তিনি নির্বাচন করতে চান।

চাঁদপুর সদর উপজেলার ৭ নং তরপুরচন্ডী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান প্রার্থী অ্যাডঃ আলম খান মঞ্জু বর্তমানে চাঁদপুর জেলা আইনজীবী সমিতির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক, জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ফোরাম চাঁদপুর শাখার দপ্তর সম্পাদক, চাঁদপুর সদর উপজেলা বিএনপির ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক ও ৭ নং তরপুরচন্ডী ইউনিয়ন বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন।

তাঁর আপন খালু হচ্ছে চাঁদপুর ৩ আসনের সাবেক সংসদ সদস্য জি এম ফজলুল হক। তার বড় ভাই ঢাকার বিএনপি নেতা। বিএনপি নির্বাচনে অংশ নিলে তিনি দলীয় মনোনয়ন পেয়ে ধানের শীষ প্রতীক নিয়ে নির্বাচন করতে পারেন সেজন্য ইউনিয়নের সর্বস্তরের মানুষের কাছে দোয়া ও সমর্থন কামনা করেছেন।