মঙ্গলবার , মে ২১ ২০২৪

রোটারী ক্লাব অব চাঁদপুর সেন্ট্রালে গভর্ণর অফিসিয়াল ক্লাব ভিজিট

স্টাফ রিপোর্টার

রোটারি ডিস্ট্রিক্ট গভর্নর প্রফেসর লে. কর্নেল (অব.) এম. আতাউর রহমান পীর বলেন, বিশ্বের ২০০ দেশের ১২ লাখ রোটারিয়ান এবং প্রায় দুই কোটি স্বেচ্ছাসেবক আর্ত মানবতার সেবায় কাজ করছেন। রোটারিয়ানরা বিশ্ব ভাতৃত্বের বন্ধনে সব মানুষকে একত্রিত করে শান্তিময় সমাজ গঠনে কাজ করে যাচ্ছেন বলে জানিয়েছেন।

২৭ অক্টোবর দিনব্যাপী রোটারী ক্লাব অব চাঁদপুর সেন্ট্রাল আয়োজনে গভর্ণর অফিসিয়াল ক্লাব ভিজিট অনুষ্ঠান সম্পন্ন হয়েছে। রোটারী ক্লাব অব চাঁদপুর সেন্ট্রালের সভাপতি রোটারিয়ান শবেবরাত সরকারের সভাপতিত্বে ও সেক্রেটারী রোটারিয়ান মাকসুদুর রহমানের পরিচালনায় এসময় রোটারি নেতৃবৃন্দ ২০১৯-২০ রোটাবর্ষের রোটারি ডিস্ট্রিক্ট গভর্নর প্রফেসর লে. কর্নেল (অব.) এম. আতাউর রহমান পীর ও ফার্স্ট লেডি ফিরোজা রহমানকেও ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানান।

তিনি জানান, বাংলাদেশসহ সারা বিশ্ব থেকে পোলিও নির্মূলে এ পর্যন্ত এক হাজার ৩০০ কোটি ডলার ব্যয় করেছে রোটারি। এ রোগের প্রাদুর্ভাব রোধে রোটারির প্রচেষ্টা আগামীতেও অব্যাহত থাকবে। এছাড়া রোটারি ২০১৯-২০ সালে স্বাস্থ্য, শিক্ষা, স্যানিটেশন, শিক্ষিত তরুণদের কর্মসংস্থানসহ বিভিন্ন কল্যাণমূলক কর্মসূচি বাস্তবায়ন করবে।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন রোটারী ক্লাব অব সেন্ট্রাল সাবেক সভাপতি রোট: বাবুলাল কর্মকার, শেখ মনির হোসেন বাবুল, মো: আলমগীর পাটওয়ারী, ব্যবস্থাপনা পরিচালক নোভা এইড ডা. মিজানুর রহমান, ব্যবস্থাপনা পরিচালক মিডল্যান্ড হাসপাতাল, জয়েন্ট ট্রেজারার রোটা: ডা: মো: ইফতেখার উল আলম, প্রোপ্রাইটার মেসার্স শরীফ এন্ড ব্রাদার্স শরীফ মো: আশ্রাফুল হক, রোটা: মফিজ উদ্দিন সরকার, রোটা: পিপি মো: জামাল হোসেন, সাবেক সভাপতি মো: সফিউদ্দিন আহমেদ, কর্নার ট্রাভেলস এন্ড ডেভেলোপমেন্টের চেয়ারম্যান মো: আব্দুল্লাহ আল মামুন, জয়েন্ট সেক্রেটারী ইমরান হোসেন, ব্যবসায়ী এম এ হান্নান, ডা: বিশ্বনার্থ পোদ্দার, ডা: রাশিদা আক্তারসহ অন্যান্য সদস্যবৃন্দ।

তিনি আরো জানান, ২০১৯-২০ সাল বাংলাদেশে রোটারির একটি কর্মমুখর বছর হবে। এ সময়ে রোটারিয়ানরা সমাজ সেবায় নিজেদের উৎসর্গ করবেন। এ বছর স্বাস্থ্য সেবাকে গুরুত্ব দিয়ে সবগুলো রোটারি ক্লাবকে বিনামূল্যে চিকিৎসা সেবা ও চক্ষুশিবির করার নির্দেশ দেওয় হয়েছে। রোটারির আন্তর্জাতিক তহবিল রোটারি ফাউন্ডেশনের সহায়তায় এ বছর নতুন আরেকটি হাসপাতাল নির্মাণকেও লক্ষ্যমাত্রার অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে। এছাড় রোটারির পক্ষ থেকে দরিদ্র ও মেধাবী ছাত্রদের জন্য বৃত্তি চালু করা হয়েছে।

উল্লেখ্য: রোটারী ক্লাব অব চাঁদপুর সেন্ট্রাল এর দিনব্যাপী অনুষ্ঠানে সকালে চাঁদপুর ঢালীর ঘাট গুচ্চ গ্রামে অর্ধশত রোগীদের মাঝে ফ্রি চিকিৎসা ও ওষদ বিতরন করা হয়। সেখানে কয়েকটি সেনেটারী উদ্বোধন করা হয়। বিকেলে রোটারী ক্লাব অব চাঁদপুর সেন্ট্রাল অফিসে গভর্নর অফিসিয়াল ক্লাব ভিজিটে উন্নত মানের সেলই মেশিন বিতরণ করা হয়।

ক্যাপশন: রোটারী ক্লাব অব চাঁদপুর সেন্ট্রালে গভর্ণর অফিসিয়াল ক্লাব ভিজিট অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখছেন রোটারি ডিস্ট্রিক্ট প্রফেসর লে. কর্নেল (অব.) এম. আতাউর রহমান পীর।