মঙ্গলবার , জুন ২৫ ২০২৪

চাঁদপু‌রে জনসচেতনতায় কাজ কর‌ছে সেনাবাহিনী  

সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখা নিশ্চিত করার লক্ষ্যে জেলা প্রশাসন চাঁদপুর জেলাকে লকডাউন ঘোষণা করেছে বহু আগেই, কিন্তু কেউ লকডাউন মানছে না।জনসমাগম ঠেকাতে মোবাইল কোর্টের অভিযান অব্যাহত, মোবাইল কোর্ট পরিচালনাকালে পুলিশ ও সেনাবাহিনীর সদস্যরা সহযোগিতা করেন।

সে জন্য চাঁদপুর বাসীকে করোনা মুক্ত রাখতে সচেতনতায় সেনা বাহিনীকে সাথে নিয়ে মাঠে নেমেছে জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ সামিউল ইসলাম।পাশাপাশি মোবাইল কোট পরিচালনা ওকরছেন।

এদিকে সকাল থেকে চাঁদপুর শহরে প্রবেশের প্রধান সড়কগুলোতে পুলিশ ও আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী এবং সেনাবাহিনী ও প্রশাসনের কর্মকর্তারা তৎপর ছিলেন। অন্যসব দিনের থেকে মঙ্গলবার চাঁদপুরে সেনাবাহিনী কঠোর অবস্থানে মাঠে নজরদারি রাখে। ছবিতে অভিযানের কয়েকটি খ-চিত্র। ছবি ও প্রতিবেদন মিজানুর রহমান। জনসাধারনকে ঘরে থাকতে সেনা বাহিনী ও জেলা প্রশাসন প্রতিনিয়ত জীবনের ঝুকি নিয়ে কাজ করে যাচ্ছে।

মঙ্গলবার সকাল থেকে কুমিল্লা ক্যান্টরম্যান্ট সেনা নিবাস থেকে ক্যাপ্টেন সায়েমের নেতৃত্বে ১০সদস্যের একটি টিম ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্র্যাট সামিউল ইসলাম শহরে শতর্কতা মুলক অভিযান চালান।

এসময় লকডাউন অমান্য করে বিভিন্ন মার্কেটে দোকানিরা দোকান খোলা রেখে বেচা বিক্রি করলে তাদের হুশিয়ার করে দেন। জনসাধারনকে মুক্তিযুদ্ধা সড়কে, মিশিন রোড, কালি বাড়ি মোড়, পালবাজার এলাকায় অযথা ঘুরা-ঘুরি করার কারণে শতর্ক করে দেন। রাস্তার পাশে ভ্যান যোগে পণ্য বিক্রেতাদের কে ও হুশিয়ার করেন।

পুরান বাজারে সতর্কতা মুলক অভিযানে গেলে অস্বাস্হ্য কর পরিবেশ দেখতে পেয়ে তারা বেকারিকে ৭ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

এসময় নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সামিউল ইসলাম বলেন,করোনা বিশ্ব ব্যাপী মহামারি আকার ধারন করেছে।বহু মানুষ মৃত্যুবরন করেছে। আমরা জীবনের ঝুকি নিয়ে সরকারের নির্দেশনা পালন করছি সেনা বাহিনী আমাদের সাথে সচেতনতায় কাজ করে যাচ্ছে।আমরা সাধারন মানুষদের কে ঘরে থাকার জন্য নির্দেশ দিয়ে যাচ্ছি।

ক্যাপ্টেন সায়েম বলেন বাংলাদেশে করোনা মহামারি আকার ধারন করেছে। আমরা জন সাধারনকে ঘরে রাখতে সার্বক্ষনিক নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সহ কাজ করে যাচ্ছি। আজকে পর্যন্ত হুশিয়ার করেছি কাল থেকে আর হুশিয়ার করবোনা কঠোর হবো।