শনিবার , জুলাই ২০ ২০২৪

চাঁদপুরে করোনায় আক্রান্ত রোগী বেড়ে ১৯৫, উপসর্গ নিয়ে ৪ জনের মৃত্যু

চাঁদপুর দিগন্ত রিপোর্ট

গত ২৪ ঘণ্টায় ১৪ কোভিড-১৯ চাঁদপুরে একদিনে দুদফা টেস্টে ১৪ জনের করোনা শনাক্ত।চাঁদপুর জেলা সদর ও উপজেলা পর্যায়ে করোনা ভাইরাসে নতুন আক্রান্ত ১৪ জনসহ আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১৯৫জন।

এর মধ্যে এই পর্যন্ত করোনায় আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরণ করেছেন ১৫জন। রিপোর্ট অপেক্ষমান রয়েছে ২৬৭টি। নতুন আক্রান্ত ১৪ জনের মধ্যে ৩ জনের রিপোর্ট আগে এসেছে। বাকী ১১ জনের মধ্যে সদরের ৬জন। মৈশাদী ১জন, মিশন রোড ১জন, বড় স্টেশন ১জন, নতুন বাজার ১জন, স্ট্যান্ড রোড ১জন ও চেয়ারম্যান ঘাট ১জন। এছাড়া ফরিদগঞ্জে ৫জন নতনু শনাক্ত হয়েছে। করোনা উপসর্গ নিয়ে হাজীগঞ্জ উপজেলায় ৮ ঘন্টার মধ্যে ৪ জনের মৃত্যু হয়েছে।

রবিবার (৩১ মে) রাতে চাঁদপুর সিভিল সার্জন কার্যালয় থেকে এসব তথ্য নিশ্চিত করা হয়।

সিভিল সার্জন কার্যালয় থেকে প্রেরিত তথ্যে জানাগেছে, আজকে ঢাকা থেকে রিপোর্ট এসেছে ৮১টি। এর মধ্যে পজিটিভ ১৪ জন (২ জন মতলব দক্ষিন ও ১ জন উত্তর থেকে আগত রিপোর্ট) এবং নেগেটিভ ৭০জনের রিপোর্ট নেগেটিভ। নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে ১১৭টি।

এই পর্যন্ত চাঁদপুর জেলা সদর ও ৭ উপজেলা থেকে নমুনা সংগ্রহ করে ঢাকায় পাঠানো হয়েছে ১৮১৬টি। রিপোর্ট এসেছে ১৫৯৪টি। এর মধ্যে পজিটিভ রিপোর্ট ১৮১টি (দুই জনের রিপোর্ট দ্বিতীয়বার পজেটিভ এসেছে)। নেগেটিভ রিপোর্ট মোট ১৩৬৮টি। রিপোর্ট অপেক্ষমান রয়েছে ২৬৭টি। এই পর্যন্ত করোনায় আক্রান্ত রোগী সংখ্যা ১৯৫জন (চাঁদপুর সদরে ১০৯, মতলব উত্তরে ৯, ফরিদগঞ্জে ৩৪, হাইমচরে ৪, হাজীগঞ্জে ১১, কচুয়ায় ৯, শাহরাস্তি ১১ ও মতলব দক্ষিণে ৮জন)।

এছাড়া আক্রান্ত রোগীদের মধ্যে ঢাকা হতে আগত ৪জন, লক্ষ্মীপুর থেকে আগত ২জন, মতলব দক্ষিণ আইসিডিডিআরবি হতে প্রাপ্ত ৭জন, কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হতে প্রাপ্ত ১জন ও নারায়নগঞ্জ থেকে আগত ১জন।

লিখিত প্রতিবেদনে চাঁদপুরের সিভিল সার্জন ডাঃ মো. সাখাওয়াত উল্লাহ জানান, এই পর্যন্ত আক্রান্ত রোগীদের মধ্যে সুস্ত্য হয়েছেন ৩৪জন। মৃত্যুবরণ করেছেন ১৫জন (চাঁদপুর সদর ৫, ফরিদগঞ্জ ৩, হাজীগঞ্জ ২, শাহরাস্তি ১, কচুয়া ২ ও মতলব উত্তরে ২জন)। চিকিৎসাধীন রোগী ১৪১জন (হাসপাতালে ৩, ঢাকায় রেফার ৪ ও হোম আইসোলেশনে ১৩৪জন)। এই পর্যন্ত হোম আইসোলেশনে রোগীর সংখ্যা ৮৩জন। ছাড়প্রাপ্ত হয়েছে ৭৪জন এবং আইসোলেশনে বর্তমান রোগীর সংখ্যা ৯জন। এর মধ্যে কোভিড-১৯: ৩জন এবং নন-কোভিড-১৯: ০৬জন।

তিনি আরো জানান, এই পর্যন্ত জেলায় হোম কোয়ারেন্টিনে থাকা ব্যাক্তির সংখ্যা ৩৬৬৩জন। হোম কোয়ারেন্টিন থেকে ছাড়প্রাপ্ত রোগীর সংখ্যা ৩৬৪৪জন এবং বর্তমানে হোম কোয়ারেন্টিনে আছেন ১৯জন।